কাশিমপুর কারা ফটকে ইয়াবাসহ আটক কারারক্ষী

31

গাজীপুরের কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগারের প্রধান গেটে ১৮৭ পিস ইয়াবাসহ এক কারারক্ষীকে আটক করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ৯টার দিকে ইয়াবা নিয়ে কারাগারে প্রবেশের সময় কারা ফটকে তাঁকে আটক করা হয়।আটক ওই কারারক্ষী হলেন ঢাকার ধামরাই উপজেলার বাধানগর এলাকার শাহিনুল ইসলাম (২৮)। শাহিনুল কাশিমপুর কেন্দ্রীয় কারাগার-২-এ কারারক্ষী হিসেবে কর্মরত।গাজীপুর মহানগরের কোনাবাড়ী থানার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) আল মমিন জানান, গতকাল রাতে অন্তর্বাসে ইয়াবা নিয়ে কারাগারের ভেতর ঢুকছিলেন কারারক্ষী শাহিনুল ইসলাম। এক পর্যায়ে কারাগারের প্রধান গেটে দায়িত্বরত কারারক্ষীরা তাঁকে তল্লাশি করেন। এ সময় তাঁর অন্তর্বাসের ভেতর থেকে ১৮৭টি ইয়াবা জব্দ করা হয়।পরে কারা কর্তৃপক্ষ থানায় খবর দিলে রাত সোয়া ১০টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শাহিনুলকে আটক করে। এ ব্যাপারে কোনাবাড়ী থানায় মাদক মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

নিহতরা হলেন দাসপুকুর এলাকার সাজদার রহমানের ছেলে শফিকুল ইসলাম (৫০) ও গিয়াস উদ্দিনের ছেলে জয়নাল আবেদীন (৪০)। জয়নাল রাজশাহী সিটি করপোরেশনের ৩ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আওয়ামী লীগ নেতা কামাল হোসেনের ভাতিজা। আর নিহত শফিকুল ইসলাম রাজশাহী মহানগর বিএনপির সাবেক সহসাংগঠনিক সম্পাদক। তিনি বিএনপি থেকে পদত্যাগ করেছিলেন।সংঘর্ষের পর শফিকুল ইসলাম ও জয়নাল আবেদীনকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন।এলাকাবাসী জানায়, যে জমির বিরোধ নিয়ে সংঘর্ষ হয়েছে, সেই জমি নিয়ে নিহত শফিকুল ইসলাম ও তার বড় ভাই আব্দুস সালাম এক পক্ষ ছিলেন। অন্যপক্ষে ছিলেন ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামাল হোসেন ও তাঁর ভাই নগরীর তিন নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহাতাব হোসেন। জমি নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে তাদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এর জের ধরে আজ দুপুরে উভয়পক্ষ দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে হতাহতের ঘটনা ঘটে।