প্রবাসীর স্ত্রীর গোসলের দৃশ্যধারণ করে ধর্ষণ

113

মাদারীপুর সদর উপজেলার ছিলারচর ইউনিয়নের রঘুরামপুর গ্রামের এক প্রবাসীর স্ত্রীর গোসলের দৃশ্যধারণ করে ব্লাকমেইলিং ও ধর্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় মাদারীপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতে একটি মামলা হলেও পুলিশ অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেনি বলেও অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী ওই নারী।

স্থানীয় ও মামলার সূত্রে জানা যায়, মাদারীপুর সদর উপজেলার রঘুরামপুর গ্রামের এক গৃহবধুর গোসলের দৃশ্যধারণ করে মোঃ দীন ইসলাম রাঢ়ী (৩৭) নামে এক যুবক। সেই দৃশ্য স্বামীর কাছে ও ফেসবুকে প্রকাশের ভয় দেখিয়ে গত বছরের ১৩ নভেম্বর ওই নারীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করে। এরপর ওই নারীকে বিভিন্ন সময় একাধিকবার শারীরিক সম্পর্কে বাধ্য করে মোঃ দীন ইসলাম। একপর্যায় ওই নারী আত্মহত্যারও চেষ্টা করে। পরে এই ঘটনায় গত বছর ১৭ নভেম্বর মাদারীপুর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন বিশেষ আদালতে মামলা দায়ের করে ভুক্তভোগী নারী। আদালত মামলাটি তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেয়।

ভুক্তভোগী নারী বলেন, গোসলের ছবি ও ভিডিও দেখিয়ে আমাকে ব্লাকমেইল করে একাধিক বার ধর্ষণ করেছে। সেই ভিডিও আমার স্বামীর কাছে পাঠিয়ে আমার সুখের সংসার ধ্বংস করে দিয়েছে দীন ইসলাম। একারণে আমি আত্মহত্যার চেষ্টাও করেছিলাম। আমার চার বছরের সন্তানের মুখের দিকে তাকিয়ে বেঁচে আছি।

ভুক্তভোগী নারীর মা কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আমরা গরীব মানুষ তাই পুলিশও আসামি গ্রেপ্তার করেনি। ওর জন্য আমার মেয়ের সংসার ভেঙ্গেছে। আমরা চাই দীন ইসলামের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হোক।

এব্যাপারে মামলার তদন্ত কর্মকর্মকর্তা ইন্সপেক্টর নাসির উদ্দিন বলেন, ‘মামলাটি তদন্তাধীন রয়েছে তাই তদন্তাধীন বিষয় বিস্তারিত কিছু বলতে চাই না। তবে শীঘ্রই আদালতে চার্জশীট দাখিল করা হবে।’